হেড লাইন

আজ পবিত্র ১০ই মুহররম শরীফ ইমাম হুসাইন রদ্বিঃ ওনার পবিত্র শাহাদাত বার্ষিকী

September 20, 2016

যেভাবে শেখ শরফুদ্দীন رحمة الله عليه পরিচিত হয়ে ওঠেছিলেন বু-আলী কালন্দর শাহ নামে

যেভাবে শেখ শরফুদ্দীন رحمة الله عليه পরিচিত হয়ে ওঠেছিলেন বু-আলী কালন্দর শাহ নামে
✒✒✒✒✒✒✒✒✒✒✒✒✒✒✒✒


নাম-শেখ শরফুদ্দীন
উপাধী-বু আলী কালন্দর
ঈমামুল মুসলেমীন,সিরাজুল উম্মাহ,
ঈমামে আজম আবু হানিফা রহ: এর ৭ম অধস্তন বংশধর।

ওনার কাশফ ক্ষমতা এতটাই প্রখর ছিল
যে যখন চিশতীয়া তরিকার আধ্যাত্নিক সাধক শেখ ফরিদউদ্দীন গঞ্জেশকর رحمة الله عليه ওনার হাতে বাইয়াত গ্রহণ করার জন্য গিয়েছিলেন তখন শেখ ফরিদ رحمة الله عليه এর দিকে দৃষ্টি পড়তেই বলেছিলেন,
আপনাকে বাইয়াত করার মত যোগ্যতা আমার নেই,
আপনি দিল্লীর কুতুবউদ্দীন বখতিয়ারের (খাজা গরীব নাওয়াজ رحمة الله عليه ওনার প্রধান খলিফা) কাছে যান...
ওনারই একমাত্র যোগ্যতা আছে আপনাকে বাইয়াত করানোর...

ওনার পীর হযরত খাজা নিজামউদ্দীন আওলিয়া رحمة الله عليه
নদীর তীরে একটি ইবাদতখানা নির্মাণ করে এতে জিকির করতেন...
শেখ শরফুদ্দীন رحمة الله عليه সেই ইবাদতখানার সোজাসুজি নীচে,
পানিতে দাড়িয়ে আল্লাহর জিকির আরম্ভ করলেন............

দীর্ঘ ১২ বছর পানিতে দাড়িয়ে ইবাদতে মশগুল থাকার কারণে তার শরীরের নিম্নাংশের গোশত পচন ধরে এবং মাছে তা খেতে থাকে...
এমন অবস্থায় তিনি খাজা খিজির (আঃ) এর দর্শন লাভ করেন...

এরুপ অবস্থায় একদিন তিনি আসমান হতে গায়েবী আওয়াজ শুনতে পেলেন!-শরফুদ্দীন!তোমার রিয়াজত ও কঠোর সাধনা আমি কবুল করেছি এবং তোমার প্রতি আমি সন্তুষ্ট।
তোমাকে আমার দোস্তগণের অন্তর্ভুক্ত করে নিলাম।
তোমার কি চাইবার আছে বলো?
আমি তোমার বাসনা পূর্ণ করবো
শেখ শরফুদ্দীন رحمة الله عليه
বললেন: মাবুদ!আপনি আলিমুল গায়েব!
আপনি জানেন, আপনাকে পাওয়া ছাড়া ভিন্ন কোন বাসনা আমার নেই।
আপনি আমার একমাত্র কাম্য।
আমার অন্তরের বাসনা এভাবে পানিতে দাড়িয়ে আপনার রাস্তায় জীবন শেষ করে দেই
তখন আবার গায়েব হতে আওয়াজ আসল:
পানি হতে ওঠে এসো এখানেই তোমার কাজ শেষ নয়।
তোমার জন্য করণীয় আরও অনেক কাজ রয়েছে।
উত্তরে তিনি বললেন:-
আপনি নিজ হাতে আমাকে এখান থেকে না ওঠানো পর্যন্ত আমি ওঠব না।
এই কথা বলেই তিনি বেহুশ হয়ে গেলেন।
এমন সময়ে একজন বুযুর্গ ব্যাক্তি এসে ওনাকে কোলে করে নদী হতে তীরে ওঠালেন।

শেখ শরফুদ্দীন رحمة الله عليه চোখ খুলেই সেই ব্যাক্তিকে বললেন: কে তুমি ভাই..??
তুমি তো আমার দীর্ঘকালের রিয়াজত নষ্ট করে দিলে!।
একটু পরেই আমি আমার লক্ষে পৌছে যেতাম কেন তুমি আমাকে বাধা দিলে..?
কেন তুমি আমার সর্বনাশ করলে..?

বুযুর্গ ব্যাক্তি তার এই অবস্থা দেখে বলল:-বৎস,তুমি আমাকে চিনতে পারনি!?
আমি আলী ইবনে আবী তালেব।
তুমি কি জানো না! যে আমাকে আল্লাহর হাত বলা হয়??
তুমি শান্ত হও, স্থির হও, তোমার সাধনা পুর্ণ হয়েছে...
একথা শুনেই শেখ শরফুদ্দীন رحمة الله عليه সিজদায় পরে আল্লাহর শোকরিয়া আদায় করলেন এবং ভক্তিভরে হযরত আলী (রাদ্বীয়াল্লাহু তা'আলা আনহু) কে কদমবুচি করলেন।
হযরত আলী (রাদ্বীয়াল্লাহু তা'আলা আনহু) ওনাকে কয়েকটি উপদেশ দিয়ে অদৃশ্য হয়ে গেলেন।

এই ঘটনার পর থেকেই ওনি বু-আলী কালন্দর নামে প্রসিদ্ধ হয়ে যান।

ভারতের রাজধানী দিল্লীর পানিপথ নামক স্থানে
এই মহান সাধকের মাজার অবস্থিত।
আল্লাহপাক এই মহান ওলীর রূহানী ফুয়ুজাত আমাদের দান করুক...
আমিন!
ভিডিও দেখুন ওনার মাজার শরীফের 👉


 ফেইসবুকে আমি 

Post a Comment